নাম ঠিকানা কিছুই বলতে পারছে না মেয়েটি

2
18368

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি :
সাতক্ষীরা-শ্যামনগরের যাত্রীবাহী বাসে অপরিচিত এই মেয়েটি কার। কথা বলতে পারছে না, বলতে পারছে না নাম-ঠিকানা কিছুই। পুলিশের ধারণা, মেয়েটিকে নেশাজাতীয় কোনো দ্রব্য খাইয়ে অচেতন করা হয়েছে।
বুধবার রাত ৮টায় সাতক্ষীরা থেকে শ্যামনগরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া যাত্রীবাহী বাসে ছিল মেয়েটি। পাশের ছিটে ছিলেন শ্যামনগরের ইসমাইলপুর এলাকার রব্বানী ব্যাপারির স্ত্রী সাবেক মহিলা ইউপি সদস্য সুফিয়া বেগম। শ্যামনগর গাড়ি পৌঁছানোর পর মেয়েটি কান্নাকাটি করতে থাকে। নাম-পরিচয় কিছুই বলতে পারছে না সে। পরবর্তীতে সাবেক মহিলা ইউপি সদস্য সুফিয়া বেগম মেয়েটিকে তার বাড়িতে নিয়ে যান।
বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে মেয়েটিকে নেয়া হয় শ্যামনগর থানায়। বতর্মানে মেয়েটি সেখানেই আছে। শ্যামনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, ধারণা করা হচ্ছে মেয়েটিকে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে অচেতন করা হয়েছে। নাম-পরিচয় কিছুই বলতে পারছে না মেয়েটি। থানায় নিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে উপজােলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও সমাজসেবা অফিসারকে জানানো হয়েছে। পাশাপাশি শ্যামনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে মেয়েটির। সুস্থ হলে বিস্তারিত জানা যাবে বলে জানান ওসি। এছাড়া যদি কেউ মেয়েটিকে চেনেন বা পরিচয় জানেন তাহলে শ্যামনগর থানায় (০১৭১৩-৩৭৪১৪৫) যোগাযোগের জন্য অনুরোধ করেছেন ওসি মোস্তাাফিজুর রহমান।

আকরামুল ইসলাম

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY