দেশ সেরা নৃত্যশিল্পী হতে চায় ময়না পাখি

0
175

অনলাইন ডেস্ক :

ময়না পাখি (পুতুল) জিপিএ-৫ পেয়ে সবে নবম শ্রেণিতে উঠেছে। পড়ছে সলিমুননেছা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে। বাবা-মায়ের আদরের নাম পুতুল। ভালো নাম ময়না পাখি পুতুল। নেশা নৃত্য ও অভিনয় করা। পুতুলের স্বপ্ন একদিন দেশসেরা নৃত্যশিল্পী হয়ে আলো ছড়াবে। ইতোমধ্যে পুতুল নৃত্যে চিত্রজগত অ্যাওয়ার্ডসহ অনেক সম্মাননা পেয়েছে। শিক্ষিত পরিবারের মেয়ে ময়না পাখি পুতুল সংস্কৃতি জগতে ধীরে ধীরে এগিয়ে চলেছে। নৃত্যের পাশাপাশি অভিয়নও করছে সে।

কালীগঞ্জ পৌরসভার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের সাবেক পুলিশ সদস্য কালিপদ সাহাও স্কুলশিক্ষিকা প্রভা রানীর একমাত্র মেয়ে ময়না পাখি পুতুল। পুতুল ইতোমধ্যে জেলা, উপজেলা ও জাতীয় পর্যায়ে নৃত্য পরিবেশন করে পুরস্কার জিতেছে। সেই সঙ্গে সে বিজয় টিভির ছোটদের ঈদ আনন্দ অনুষ্ঠানের উপস্থাপন, ধারাবাহিক নাটক আমাদের সংসার, গ্রিন সিগন্যাল, সাফ সাফাইসহ বেশ কয়েকটি নাটকে অভিনয় করেছে।

পুতুল জানায়, জনপ্রিয় বিনোদন সাপ্তাহিক ছায়ালোক তাকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। পুতুল মাত্র ৩ বছর বয়স থেকে নাচের তালিম নিয়ে আসছে। মডার্ন ও ক্ল্যাসিক্যাল নৃত্য তার আয়ত্বে রয়েছে।  পুতুল আরও জানায়, যশোরের গোপালকুন্ডুর হাত ধরে নাচে আসা তার। আর নাটক ও অভিনয়ে এসেছে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের আরেক নাট্য অভিনেতা মাহতাব উদ্দিন মন্ডু ওরফে (বাঘা মন্টু) হাত ধরে।

পুতুলের স্বপ্ন লেখাপাড়ার পাশাপাশি সংস্কৃতি অঙ্গনে থাকা এবং তার সব শ্রমও মেধা কাজে লাগানো। এর জন্য তিনি সবার সহযোহিগতা কামনা করেন। পুতুলের মা স্কুল শিক্ষিকা প্রভা রানী জানান, তার মেয়ে জেএসসিতে জিপিএ-৫ ও পিএসসিতেও জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। মেধাবী পুতুল পড়াশোনার পাশাপাশি নাচ ও অভিনয় নিয়েই ব্যস্ত রয়েছে।

এস এম পলাশ