দেবহাটায় ছাত্রকে বেত্রাঘাতের ঘটনায় প্রধান শিক্ষকের দৌড়ঝাপ

0
172
মোমিনুর রহমান,দেবহাটা:
দেবহাটার হাদিপুর আহছানিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র সবুজ হোসেনকে বেত্রাঘাতের ঘটনায় কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটি। এমনকি এমন একটি চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে সেটি বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে তবুও কোন খোজ খবর রাখেন না উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা। তবে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় নিজেকে বাঁচাতে সরকার দলীয় নেতাকর্মীদের কাছে দৌড়ঝাপ শুরু করেছেন প্রধান শিক্ষক আব্দুল জব্বার।
স্থানীয়রা জানান, মাতৃহারা সবুজ গরীব দাদা-দাদীর সংসারে থেকে লেখাপড়া করে। ২০১৩ সালে দেবি শহর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পিএসসিতে জিপিএ ৫ এবং ২০১৬ সালে হাদিপুর আহাছানিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় জেএসসিতে জিপিএ-৫ সহ সাধারণ গ্রেডে বৃত্তি পায়। এখন সে ৯ম শেণিতে বিজ্ঞান বিভাগে অধ্যায়ন করছে। সে খুবই ভাল ছাত্র। তাকে বেদ্রাঘাত করায় আমরা খুবই মর্মাহত হয়েছি। এ ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে প্রধান শিক্ষক আব্দুল জব্বার নওয়াপাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান রেজাউল হকের কাছে ছুটাছুটি করছেন বলে স্থানীয়রা জানান।
প্রধান শিক্ষককে সমর্থন করে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব তৈমুর রহমান বলেন, বিষয়টি মিমাংসা হয়ে গেছে। তাছাড়া পড়াতে হলে এরকম একটু মারপিট করতে হয়।
নওয়াপাড়া ইউনিয়ানের সাবেক চেয়ারম্যান রেজাউল হক বলেন, মিমাংসা হয়েছে বলে শুনেছি, তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত আর কিছু আমি জানিনা।
দেবহাটা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল হাই বলেন , সারা দিনের ব্যস্ততায় পত্রিকা দেখার সুযোগ হয়নি। তাছাড়া আমার কাছে কেউ কোন অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
উল্লেখ্য, গত সোমবার হাদিপুর আহছানিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র সবুজ হোসেন(১৪ কে বেত্রাঘাত করেন একই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল জব্বার।
দৈনিক সাতক্ষীরা/জেড এইচ