দেবহাটার চেয়ারম্যান আব্দুল গনিসহ নয় জনের বিরুদ্ধে হত্যা প্রচেষ্টার মামলা, গ্রেফতার-২

0
595

ইয়ারব হোসেন:
সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবদুল গনিসহ নয় জনের বিরুদ্ধে হত্যা প্রচেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়েছে। একই উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুব আলম খোকন বাদী হয়ে বুধবার রাতে দেবহাটা থানায় এ মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামিরা হলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবদুল গনি,দেবহাটার চাঁদপুর গ্রামের মিজানুর রহমান ও উপজেলা পরিষদ কর্মচারি আমিনুর রহমান বাবু, চেয়ারম্যানের বোন জামাই সাবুর আলি, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক যথাক্রমে মনিরুজ্জামান কেল্টু ও রেজাউল ইসলাম এবং সাংগঠনিক সম্পাদক ইউপি সদস্য মুজিবর রহমান। মামলায় বাদী ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুব আলম খোকন উল্লেখ করেন যে গত মঙ্গলবার উপজেলা চেয়ারম্যানের অফিসে টিআর ও কাবিটাসহ বিভিন্ন প্রকল্পে টাকা বরাদ্দ নিয়ে মিটিং চলছিল। এ সময় প্রকল্পের কাজ নিয়ে কিছু দুই জনের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়।এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যানের হুকুমে নিজের লাইসেন্সকৃত অস্ত্র দিয়ে তার ভাড়াটেরা তাকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা চালায়। অস্ত্র দিয়ে তাকে উপর্যুপরি আঘাত করা হয় । তাকে কিল চড় ঘুষি ও লাথি মেরে আহত করা হয়। তিনি পড়ে গেলে ইউএনও হাফিজ আল আসাদসহ অন্যরা তাকে উদ্ধার করেন। খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তিনি আহত হওয়ায় তাকে প্রথমে সখিপুর হাসপাতাল ও পরে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মামলার বাদি আরও জানান, এদিন তার ওপর হামলার ঘটনা ছিল পূর্ব পরিকল্পিত। এজন্য চেয়ারম্যান তার লাইসেন্সকৃত অস্ত্রটি অফিসে নিয়ে আসেন। এমনকি মিটিং চলাকালে চেয়ারম্যানের পেটুয়া বাহিনীর সদস্যরা ও আত্মীয় স্বজন সেখানে জড়ো হন।  চেয়ারম্যান আব্দুল গনি জানান, তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। সে আমার বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে নানা কাজ করে চলেছে। আমাকে হয়রানির জন্য মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে।
দেবহাটা থানার ওসি কাজী কামাল হোসেন জানান, ভাইস চেয়ারম্যানের দেওয়া মামলাটি বুধবার রাতে রেকর্ড করা হয়েছে ( মামলা নম্বর ১৪)। তিনি বলেন, এ মামলার দুই আসামি মনিরুজ্জামান কেল্টু ও রেজাউল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছে।