ঢাকা, বুধবার, ২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং | ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
দুই ডাচ সুন্দরীর কুমারীত্ব নিলামে!

দুই ডাচ সুন্দরীর কুমারীত্ব নিলামে!

0
128

কত কিছুই তো নিলামে ওঠে, কিন্তু তাই বলে নিজের কুমারীত্ব? অবাক হওয়ার দিন শেষ। এটি এখন নতুন কিছু নয়, অনেকদিন ধরেই অনলাইন নিলাম প্রতিষ্ঠানগুলোতে কুমারীত্ব (Virginity) নিলাম হচ্ছে। ঋণের দায়ে অথবা অর্থ উপার্জনের মাধ্যম হিসেবে অনেকেই নিলামঘরগুলোর দ্বারস্থ হচ্ছেন।

এরই ধারাবাহিকতায় নিজেদের কুমারীত্বকেই নিলামে তুলতে চলেছেন দুই ডাচ তরুণী! অষ্টাদশী লোলা ও ২০ বছরের মোনিকা। যেখানে নিজের জীবনের এই মূল্যবান পট পরিবর্তনের জন্য সকলের অপেক্ষা থাকে সুযোগ্য সঙ্গীর, সেখানে কেন এই দুই তরুণী কেবল মাত্র অর্থের বিনিময়ে নিজেদের কুমারীত্বকে নিলামে তোলার সিদ্ধান্ত নিলেন তা নিয়ে বিস্ময়ের সৃষ্টি হয়েছে নেদারল্যান্ডসে।

নিলামে ভালো দাম পেতে ইতোমধ্যে তারা বিভিন্ন ভঙ্গিতে তাদের বিকিনি পরা ছবিও জমা দিয়েছেন। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়ায়ও আপলোড করেছেন এমন অনেক ছবি যা দেখলে হয়ত নিলামে ক্রেতার অভাব পড়বে না।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, সেদেশে নিলাম নিষিদ্ধ। তাই ওই দুই তরুণী দ্বারস্থ হয়েছেন সিন্ডারেলা নামের এক জার্মান সংস্থার। দু’জনেরই কুমারীত্বের ন্যূনতম দর রাখা হয়েছে ২৫ হাজার মার্কিন ডলার।

কিন্তু কেন এমন সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন তাঁরা? লোলা জানাচ্ছেন, তিনি আর্থিক অস্বাচ্ছন্দ্য ছাড়াই জীবন কাটাতে চান। এই অর্থ দিয়ে তিনি পরিবারের ধার শোধ করবেন। লোলা জানাচ্ছেন, অনেকে তাঁর সিদ্ধান্তকে হয়তো মেনে নিতে পারছেন না। কিন্তু অনেকেই নিজেদের কুমারীত্ব যাঁদের কাছে হারিয়েছেন, তাঁদের সঙ্গেই কি সারা জীবন থাকতে পেরেছেন, এই প্রশ্ন তোলেন লোলা।

মোনিকা জানাচ্ছেন, তিনি তাঁর কুমারীত্ব খোয়ানোর জন্য তেমন কাউকে খুঁজে পাননি। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়াশোনার জন্য খরচও যথেষ্ট বেশি। তাই এই ভাবেই নিজের কুমারীত্ব হারিয়ে পড়াশোনার খরচ তুলতে চান। তাঁর মতে, এ ভাবে তাঁর ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত হবে।

প্রসঙ্গত, ওই দুই তরুণীকে নিজেদের অটুট কুমারীত্বের সার্টিফিকেট জমা দিতে হবে। নিলামে জয়ীরা জানাবেন কোন হোটেল রুমে তাঁরা ওই তরুণীদের নিয়ে যাবেন। সিন্ডারেলা নামের সংস্থাটি তরুণীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করবে।

তবে কেবল ওই দুই তরুণীই নয়, আরও ৩৮ জন মহিলা নিজেদের কুমারীত্ব নিলামে তুলছেন ওই সংস্থার মাধ্যমে বলে জানা যাচ্ছে।