দীর্ঘ সাড়ে তিন বছর পর সাতক্ষীরা জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সভা অনুষ্ঠিত

0
103

ডেস্ক রিপোট:

বিএনপি নেতা আমান হত্যার দীর্ঘ সাড়ে তিন বছর পর জেলা বিএনপির আভ্যন্তরীণ কোন্দল মেটাতে কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে তৃণমূল নেতা-কর্মীদের এক সাংগঠনিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার দিনভর শহরের আমতলা মোড়, নবারুন স্কুল মোড় ও কামাননগর এলাকায় পৃথক তিনটি সাংগঠনিক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সাংগঠনিক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ও খুলনা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ও খুলনা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক জয়ন্ত কুমার কুন্ডু। জেলা বিএনপির সভাপতি রাহমাতুল্লাহ পলাশের সভাপতিত্বে শহরের আমতলা মোড়স্থ এলাকায় সাংগঠনিক সভায় উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান আব্দুল আলিম, পৌর বিএনপির সভাপতি হাবিবুর রহমান হবি, অধ্যাপক মোদাচ্ছেরুল হক হুদা, শের আলী, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এসএম আকবর হোসেন, কৃষকদল সভাপতি আবু জাহিদ ডাবলু, আব্দুল্লাহ আল মামুন রাজু, আব্দুর রাজ্জাক শিকদার, ছাত্রদল সভাপতি হাফিজুর রহমান মুকুল, আহাদুজ্জামান আর্জেদ, শফিকুল আলম বাবু, শাহীনুল করিম, সালাউদ্দিন লিটন, মাহমুদুল হক, নাসির উদ্দিন প্রমুখ। এদিকে, শহরের নবারুন স্কুল মোড় এলাকায় জেলা বিএনপির যুগ্ন সম্পাদক শেখ তারিকুল হাসানের নেতৃতে সেখানে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি কামরুল ইসলাম ফারুক, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি রফিকুল আলম বাবু, সহ-সভাপতি ইউছুপ আলী, কালিগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি এড. আব্দুস সাত্তার, কলারোয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি হাজী কামরুল ইসলাম, জেলা যুবদলের সভাপতি আবুল হাসান হাদি, বিএনপি নেতা মাসুম বিল্লাহ শাহীন প্রমুখ। অপরদিকে, সাবেক জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এড, সৈয়দ ইফতেখার আলীর নেতৃত্বে শহরের কামাননগর এলাকার সাংগঠনিক সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতি, বিএনপি নেতা এড. শহিদুল্লাহ প্রমুখ। সাংগঠনিক সভায় প্রধান অতিথি খুলনা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত সাতক্ষীরা জেলা বিএনপির তৃণমূল নেতা-কর্মীদের সকল ভেদাভেদ ভূলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান এবং অচিরেই সকলের সমন্বয়ে জেলা বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটির প্রদান করা হবে বলে সকল আশ্বস্ত করেন। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ৬ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সাতক্ষীরা জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে বিএনপির তৎকালিন সভাপতি হাবিবুল ইসলাম হাবিব ও সাধারণ সম্পাদক এড. সৈয়দ ইফতেখার আলীর দুগ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে নিহত হন জেলা জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দলের সাধারণ সম্পাদক ও সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি আমান উল্লাহ আমান। আর এর পর থেকে জেলা বিএনপি প্রকাশ্যে তিনটি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে যায়। অনিন্দ্য ইসলাম অমিত মতবিনিময় সভা শেষে শহিদ আমান উল্লাহ আমানের কবর জিয়ারত করেন এবং তার মায়ের সাথে দেখা করে খোজখবর নেন। তিনি সেখানে বলেন, আমানের খুনিদের আমরা দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি চায়।

.