দামুড়হুদা মডেল থানা পুলিশের এক মাসে গ্রেফতার ২৭৮ : মামলা ৪৯

0
272
মিরাজুল ইসলাম,চুয়াডাঙ্গা:
চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা মডেল থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আকরাম হোসেন যোগদানের পর মাদকের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষনা করেন। তিনি যোগদানের পর দামুড়হুদা উপজেলার চিহৃত মাদক এলাকায় একের পর এক ঝটিকা অভিযান শুরু করেন। এসব অভিযানে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হতে থাকে একের পর এক মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীরা। ফলে কোন ঠাসা হয়ে পড়ে মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীরা অনেকে চলে গেছেন আতœগোপনে অনেকে ভুলেছেন মাদক সেবন। পুলিশের এই উদ্দ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে সচেতন অভিভাবক মহল।
গত নভেম্বর মাসে সর্বমোট ২৭৮ জন আপরাধীদের আটক, ৪৯টি মামলা রুজু, ৬১টি মামলা নিস্পত্তি, ভ্রাম্যমান আদালতে ১০জনকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা ও ১৭জনকে বিনাশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।
বুধবার রাতে ৯টায় এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে ওসি আকরাম হোসেন বলেন, দামুড়হুদা মডেল থানায় যোগদানের পর থেকে মাদকের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষনা করেছি। তারই অংশ হিসেবে মাদক দ্রব্য বিরোধী অভিযান চালিয়ে ৩৫টি মামলায় ৪৩ জন আসামীর মধ্যে ৪২জনকে গ্রেফতারসহ ৩৪৭ বোতল ফেন্সিডিল, ৫৩ কেজি ৩০০ গ্রাম গাঁজা, ৪১৬টি ইয়াবা টেবলেট, ৫৬ পুরিয়া হেরোইন উদ্ধার করেছি। এবং উপজেলার দর্শনা পৌর এলাকাই মাদকসেবনকারী সংক্রান্ত অভিযান চালিয়ে ৬০জন আসামী গ্রেফতার ও পুলিশ আইনের ৩৪(৬)ধারায় ৩৪টি ননএফআইআর প্রসিকিউশন দাখিল করা হয়েছে।
এছাড়াও থানা এলাকাই মাদক সংক্রান্তে মোবাইল কোর্টে ২৭জনের বিরুদ্ধে ২০টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মোবাইল কোর্টে ১জনকে ৮ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড, ১জনকে ৬ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড, ৯জনকে ১৫দিন বিনাশ্রম কারাদন্ড, ৬জনকে ৭ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং ৪জনকে ১০হাজার টাকা ও ৬জনকে ৫হাজার করে সর্বমোট ১০জনকে ৭০হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।
তিনি আরো জানান, নিয়মিত মামলায় ৬৫জন, গ্রেফতারী পরোয়ানা সংক্রান্তে জিআর মামলায় ৫৪জন, সিআর মামলায় ৯৫জন, সাজাপ্রাপ্ত ৪জন, পলিশ আইনের ৩৪(৬) ধারায় ৬০জনকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হয়েছে।

দৈনিক সাতক্ষীরা/জেড এইচ