জেলা সমাজসেবা প্রবেশন কর্মকর্তার অপসারনের দাবিতে মানববন্ধন

0
84
নিজস্ব প্রতিবেদক:
জেলা সমাজসেবা প্রবেশন কর্মকর্তার অপসারনের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে। প্রতিবন্ধী নাগরিক অধিকার পরিষদের উদ্যোগে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় সদর উপজেলার সামনে শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রতিবন্ধী মানুষের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বক্তব্য রাখেন, জাতীয় অন্ধ সংস্থার সাতক্ষীরা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শেখ আবুল কালাম আজাদ, বাস্তহারালীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুস সামাদ, জেলা ভুমিহীন উন্নয়ন সমিতির সভাপতি আব্দুস সাত্তার, কালীগঞ্জ প্রতিবন্ধী উন্নয়ন সমিতির সভাপতি আব্দুল খালেক, পদ্মপুকুর প্রতিবন্ধী কল্যাণ সমিতির সভাপতি মোঃ হাবিবুর রহমান, প্রতিবন্ধী নারী উন্নয়ন সংস্থার সহসভানেত্রী মোছা নুরজাহান খাতুন, মোঃ সাইদুল ইসলাম, রেহেনা খাতুন, মোঃ শামছুর রহমান, আসাদুল প্রমুখ। নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রতিবন্ধী পুনর্বাসন কল্যাণ সমিতির সাবেক অফিস সহকারী অরুন কুমার সরদার একটি স্বার্থনেষ্ণী মহলের নির্দেশে প্রতিবন্ধী পুনর্বাসন কল্যাণ সমিতির সঞ্চয়, ঋণের কিস্তি, মাসিক চাঁদা আদায় করে তিনলক্ষ (আনুমানিক) টাকা আত্মস্বাথ করে, এছাড়া অফিসের ক্যাশ বাক্স ভেঙে নগদ ০২লক্ষ টাকা, একটি ল্যাপটপ কম্পিউটার, একটি ডিজিটাল ক্যামেরা, ক্যাশ ও লেজার খাতা ও অফিসের প্রয়োজনীয় খাতা চুরি করে নিয়ে যায়। এঘটনায় তার বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়- মামলা নং-১৩৩/১৫। সে নিজে বাঁচার জন্য প্রতিবন্ধী পুনর্বাসন কল্যাণ সমিতির মহাসচিবের বিরুদ্ধে মিথ্যা ভিত্তিহীন তথ্য প্রচার করে। উক্ত মিথ্যা তথ্যের উপর ভিত্তি করে সমাজসেবা প্রবেশন কর্মকর্তা মিজানুর রহমান অত্র অফিসের কোন কাগজপত্র যাচাই না করে এবং সমিতির কোন সদস্যদের না জানিয়ে অফিস সহকারী অরুন সরদারের নিকট থেকে মোট অংকের অর্থের বিনিময়ে মিথ্যা ভিত্তিহীন একটি প্রতিবেদন পেশ করেন। তার আগে শেখ আবুল আজাদের নিকট ৫০হাজার টাকা দাবী করেন। সে দিতে অস্বীকার করায় অভিযোগকারীর পক্ষে ভিত্তিহীন রিপোর্ট পেশ করেন। এছাড়া কালীগঞ্জ একটি প্রতিবন্ধী সংগঠনের নিবন্ধন দেওয়ার নাম করে ১৩ হাজার ৫০০টাকা গ্রহণ করে ১১মাস পরে নিবন্ধন দেন। মানব বন্ধন শেষে প্রতিবন্ধী নাগরিক অধিকার পরিষদের পক্ষে দাবী পেশ করা হয়। দাবি সমূহ হলো : প্রতিবন্ধী পুনর্বাসন কল্যাণ সমিতির বিরুদ্ধে মিথ্যা ভিত্তিহীন প্রতিবেদন বাতিল করে পুনঃতদন্ত পূর্বক সকল সমস্যার সমাধান করা। ঘুষখোর, দুর্নীতিবাজ, নারীলোভী সমাজসেবার প্রবেশন কর্মকর্তা মিজানুর রহমানকে সাতক্ষীরা জেলা থেকে শাস্তি মুলক অপসরান। প্রকৃত প্রতিবন্ধীদের যাচাই পুর্বক ভাতার অন্তর্ভুক্ত করা। উল্লেখিত দাবি দ্রুত বাস্তবায়ন না হলে আগামীতে প্রতিবন্ধী নাগরিক অধিকার পরিষদের পক্ষ থেকে সড়ক অবরোধ, ঝাড়– ও জুতা মিছিল, অনশন ধর্মঘট ও জেলা সমাজসেবা কার্যালয় ঘেরাও করার মত কঠিন কর্মসুচি পালন করা হবে বলে বক্তারা জানান। এছাড়া সমাবেশ থেকে মিজানুর রহমানকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হয়।
দৈনিক সাতক্ষীরা/ জেড এইচ