জুলাইয়ে ৮৬৪ প্রতিষ্ঠানকে ৪০ লাখ টাকা জরিমানা

0
41

অনলাইন ডেস্ক :

সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণার দায়ে গত জুলাই মাসে ৮৬৪টি প্রতিষ্ঠানকে ৪০ লাখ ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম লস্কর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।   ভোক্তা অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জুলাই মাসে সারাদেশে ২১৬টি বাজার তদারকি ও ভোক্তাতের নানা অভিযোগের প্রেক্ষিতে মোট ৮৬৪টি প্রতিষ্ঠানকে ৪০ লাখ ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯ সালে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন করা হয়েছিল। এ আইনে ভোক্তা অধিকার ক্ষুণ্ন করছে এমন কাজের বিরুদ্ধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে অভিযোগ করতে পারেন। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়। এর মধ্যে জরিমানা বা কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে। জরিমানা হলে ভোক্তাকে মোট জরিমানার ২৫ শতাংশ অর্থ তাৎক্ষণিকভাবে দেয়া হয়।

আলোচিত সময়ে ভোক্তার অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে এমন ২৫২ জনকে দুই লাখ ৪৩ হাজার টাকা পুরস্কার হিসেবে প্রদান করেছে অধিদফতর। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সরকার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণের স্বার্থে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ প্রণয়ন করে। এরপর থেকে সংস্থাটি ভোক্তাদের অধিকার সম্পর্কে প্রচার-প্রচারণা শুরু করে। প্রচারণার মাধ্যমে ভোক্তারা সচেতন হচ্ছেন। কেউ মানহীন পণ্য দিচ্ছে কি না, প্রতিশ্রুত সেবা পাওয়া না পাওয়া আর সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য (এমআরপি) থেকে অতিরিক্ত আদায় হচ্ছে কি না এসব বিষয়ে ভোক্তারা আগের চেয়ে অনেকটা সচেতন। অনিয়ম দেখলেই অধিকার আদায়ে অধিদফতরের শরণাপন্ন হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। অভিযোগ করছেন প্রতারণার বিরুদ্ধে। এসব কারণে দিন দিন অধিদফতরে অভিযোগ বাড়ছেই।

অধিদফতরের মহাপরিচালক শফিকুল ইসলাম লস্কর বলেন, এখন সহজে লিখিতভাবে চিঠিতে বা অনলাইনে অভিযোগ করা করতে পারছেন সাধারণ ভোক্তারা। তাদের অভিযোগ নিষ্পত্তিতে অধিদফতরের ১৩টি দক্ষ কমিটি কাজ করছে। অভিযোগ পাওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে সমাধান করা হয়।

এছাড়াও অধিদফতরের কর্মকর্তাদের নেতৃত্বে নিয়মিত বাজার তদারকি জন্য অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। কোনো প্রতিষ্ঠানের পণ্য বা সেবায় অনিয়ম দেখলে সে ব্যাপারে এ অধিদফতরে অভিযোগ করার জন্য ভোক্তাদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

এস এম পলাশ