ছাত্রলীগ নেতার হামালায় ১সেচ্ছাসেবক  নেতাসহ তার দুই ছেলে আহত 

0
102
শহর প্রতিনিধি: 
সাতক্ষীরা শহরের পলাশপোল চেয়ারম্যান পাড়ায় সাবেক ছাত্রলীগের এক নেতা ও তাঁর পরিবারের লোকজন  হামলা চালিয়ে সেচ্ছাসেবক লীগ এক নেতা ও তার দুই ছেলেকে হাসপাতালে পাঠিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে পলাশপোল মোজাহার আলী পাম্পের সামনে  সেচ্ছাসেবক লীগ অফিস  ভাংচুর ও  সেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে  মারধরের ঘটনা ঘটে। সাবেক ছাত্রলীগ নেতার নাম মাহমুদ ইসলাম নয়ন। তিনি সাবেক পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। আহত তিনজন হলেন পৌর ৮ নং ওয়ার্ড সেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়ার সহ- সভাপতি লুতফার রহমান টিকু(৫০), তাহার বড় ছেলে শান্ত(৩০) ও ছোট ছেলে ফয়সাল রহমান বাবু(২০)  স্থানীয় লোকজন তাঁদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। লুতফার রহমান টিকু ছাড়া দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। আহতরা জানান, শহরের পলাশপোল মৃত মোজাহার আলী চেয়ারম্যানের ছেলে মিজা(৫০) স্ত্রী  মসিদা খাতুন (৪০) ছেলে মাহমুদ ইসলাম নয়ন (৩০)সহ অজ্ঞাত ১০/১২ জন  গত মঙ্গলবার জাতীয় শোক দিবসে তুচ্ছো ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রথমে টিকুর ছোট ছেলেকে মারধর করে ও ঘটনায় তারা ও দিন রাতে সদর থানা একটি লিখিত অভিযোগ করে হয় তার কারনে এই হামলা চালায়। তাকে ইট লোহার রড, দা, সাবল, হাতুড়ী, ছোরা দিয়ে তাকে মারধর করে। এব্যাপারে আহত টিকু জানান, শোক দিবসে ৮ নং সেচ্ছাসেবক লীগ অফিসে দোয়া ও গরীব অসহায়দের মাঝে দুপুরের খাবার রান্না করা হয়। রান্না করা পরে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নয়ন ও তার কিছু ছেলে এসে বলেন ভাই ২০ পেগের খাবার দিতে বলেছেন। তিবি বলেন আমরা তো এই খাবার কোন বক্তর জন্য রান্না করা হয়নি  এথেকে  কোন প্রকার খাদ্য তোমাদের দেওয়া হবেনা এই কথা বলের পরে তারা চলে যায়।  পরে আমার কাছে নয়ন ফোন করে বলে তুই আমার ছেলেদের খাবার দিসনি তোর ব্যবস্তা ও তোর পরিবারের ব্যবস্তা করা হবে  তার সাথে সে গালিগালাস করতে থাকে পরে সে ফোন কেটে দায়। এর জের ধরে সে আমার ও পরিবারে এই অবস্থা করে। আরও বলেন, ‘সন্ত্রাসী নয়ন  ছাত্রলীগের ব্যানারে চাঁদাবাজি, বিভিন্ন দোকন থেকে রাতে চাদাবাজি করে। আরো বলেন, ‘আমাদের কাছে নয়ন বিভিন্ন সময় টাকা চাঁদা দাবি করছে। চাঁদা না পেয়ে আমাদের ওপর হামলা চালিয়ে আহত করে। এর আগেও নয়ন বিভিন্ন মানুষের এই ভাবে আহত করেছে। এ বিষয়ে ৮ নং ওয়ার্ড সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি বলেন, ‘ছাত্রলীগ নেতার হাতে সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা লাঞ্ছিত হবেন, তা কিছুতেই মেনে নেওয়ার নয়। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক ও নিন্দনীয়।’ এ ঘটনায় আহতরা আইনের আশ্রয় নেবেন বলেও জানান তিনি।এ বিষয়ে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি রাতুল  বলেন, সে সাবেক সাধারন সম্পাদক ছিলেন তার নামে এমন অভিযোগ ও চাঁদাবাজি করা কারনে তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। এ বিষয়ে নয়নের  সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে, এ বিষয়ে তিনি পরে কথা বলবেন বলে ফোন কেটে দেন। এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মারুফ আহমেদ বলেন, বিষয়টি তিনি দুইপক্ষের লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। তবে এ বিষয়ে তিনি তদন্ত করে আইন অনুযায়ী ব্যবস্তা গ্রহন করবেন।
রবিউল আওয়াল

LEAVE A REPLY