খালেদা জিয়া এসে নির্বাচনের রূপরেখা দেবেন

    0
    70

    অনলাইন ডেস্ক:

    বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও প্রবীণ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছেন, তাঁর দলের চেয়ারপারসন দেশে এসে নির্বাচনের যে রূপরেখা দেবেন সেই অনুযায়ী নির্বাচন হবে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে সুশীল ফোরামের উদ্যোগে ‘গণতন্ত্র ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

    খন্দকার মাহবুব আরো বলেন, ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই নির্বাচন দিতে হবে, যে নামেই দিন না কেন । বাংলাদেশের মাটিতে আর কোনোদিন শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন হবে না এবং সেনাবাহিনীকে অবশ্যই মাঠে রাখতে হবে। তাদের দিয়ে সব কাজ করাতে পারবেন অথচ গণতন্ত্র রক্ষার সবচেয়ে জরুরি নিরপেক্ষ নির্বাচন। জাল ভোট হচ্ছে কি না, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হচ্ছে কি না- সেটা তদারকি করার সম্পূর্ণ ক্ষমতা দিতে হবে সেনাবাহিনীকে।’

    আইনজীবী মাহবুব বলেন, ‘সংসদ ভেঙে যাবে অথচ সাংসদ বহাল থাকবে এবং নির্বাচনকালীন সব সুযোগ সুবিধা ভোগ করলে কীভাবে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হবে? এই সরকারের মতোই হিটলারও কিন্তু একই অবস্থা করেছিল। আজকে আমাদের দেশে সেই হিটলারি রাজত্ব চলছে।’ তিনি বলেন, ‘দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল বন্যায় ভাসছে, লক্ষ লক্ষ রোহিঙ্গা অসহায়, বাংলাদেশ সরকার বিজিবি পাহারা দিচ্ছে যাতে রোহিঙ্গারা এ দেশে প্রবেশ করতে না পারে। ১৯৭১ সালে ২৫ মার্চের পরে আমাদের দেশের মানুষ বর্ডার পেরিয়ে আশ্রয় নিয়েছিল মিয়ানমারে, তখন কিন্তু রোহিঙ্গারা আমাদের আশ্রয় দিয়েছিল। এখন আমাদের সরকার অন্য কাজে ব্যস্ত তারা ব্যস্ত কীভাবে সুপ্রিম কোর্টের রায়কে পাল্টে দেওয়া যায়।’

    খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ‘খালেদা জিয়া, ২০-দলীয় জোটের নেত্রী বাংলাদেশে এসে নির্বাচনের যে রূপরেখা দেবেন সেই অনুযায়ী নির্বাচন হবে। নয়তো এ দেশে নির্বাচন হবে না, হবে না, হবে না। সরকার পালিয়ে বাঁচতে পারবে না।