কেমন হবে এই সময়ের মেকআপ

0
52

অনলাইন ডেস্ক :

সূর্যের মিষ্টি হাসি যেন দিন দিন আগুনের ফুলকি হয়ে আচ্ছে! আর তার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বাইরের ধুলাবালি আর তাপদাহ। কিন্তু এর মাঝেই আমাদের দৈনন্দিন কাজগুলো সেরে নিতে হয়। অফিস, ভার্সিটি, স্কুল, কলেজ কিংবা নিজের বাসস্থান সব জায়গাতেই আপনি আছেন আর আছে প্রচণ্ড এই গরম। তবে যত গরমই পরুক বাইরে নানা কাজে আপনাকে বের হতেই হয়।বাইরের কাজের মধ্যে থাকে অফিস মিটিং, ভার্সিটিসহ আরও কতকিছু। তাই হালকা টাচআপ কিংবা মেকআপ একটু চাই। কিন্তু এই গরমে তাকে তার মতো থাকতে দেওয়া কি আসলেই সম্ভব! অনেক বড় এই চ্যালেঞ্জিং কাজটি আপনি কিন্তু খুব সহজেই করে নিতে পারেন। কিছু টিপস পারে এই গরমেও আপনাকে সতেজ রাখতে আর মেকাপের বিড়ম্বনা থেকে দূরে রাখতে। এই গরমে আপনি যখনই বের হবেন মনে করে অবশ্যই সানক্রিম লাগিয়ে নিন মুখে। তবে খেয়াল রাখুন তা যেন বের হবার প্রায় ত্রিশ মিনিট আগে হয়। এরপর মুখে হালকা বেবি পাউডার লাগিয়ে নিন। এতে আপনার ত্বক যেমন সানবার্ন থেকে রক্ষা পাবে তেমনি আপনার মুখের পাউডারটিও থাকবে দীর্ঘক্ষণ। ঠিক একইভাবে আপনি মেকাপ করার আগেও মুখে সানক্রিম মাখিয়ে নিতে পারেন। কড়া রোদে লিপস্টিকের বদলে লিপলোস লাগানোই ভালো। এটি ত্বককে আল্ট্রাভায়োলেট থেকে রক্ষা করে।

চোখের সাজের ক্ষেত্রে চোখের পাতার ওপরের অংশে ব্রাউন আইশ্যাডো ব্যবহার করুন। আইলিডের অংশে আইশ্যাডো স্মাজ করে দিতে পারেন। এটি স্মোকি লুক তৈরিতে সাহায্য করবে। খেয়াল রাখবেন, আইলিডের অংশের মেকআপের সঙ্গে আইব্রোরোনের মেকআপের যেন খুব বেশি পার্থক্য না থাকে। ব্রাউন, ব্রোঞ্জ বা গোল্ড গ্লাস বা শাইন ব্যবহার করতে পারেন। এটি আপনাকে খুব বেশি গরমেও আপনাকে নিজেকে সুন্দরভাবে সাজাতে সাহায্য করবে।

পাউডার ব্লাশার গরমের জন্য উপযুক্ত হেয়ার লাইনের কাছে ব্লাশারের রঙটা একটু গাঢ় হবে। আর চিকজের কাছে হালকা হবে। এতে গালের অংশে মেকআপের হালকা আভা তৈরি হবে ও ত্বক উজ্জ্বল হয়ে উঠবে। ফরসা ত্বকে সাধারণত ভালো লাগে পিংক বা কোরাল শেডের ব্লাশ। আর শ্যামলা রঙের ত্বকে ভালো ওয়াইন বা বারগেন্ডি শেডের ব্লাশ ফাউন্ডেশন। শুষ্ক ত্বকের জন্য ক্রিম বেজ ও তৈলাক্ত ত্বকের জন্য পাউডার ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন। মেকআপের আগে ত্বক ভালোভাবে পরিষ্কার করে একটু করে বরফ ঘষে নিন।মেকআপের আগে এক টুকরো বরফ ত্বকে লাগিয়ে নিন। এতে স্কিনে মেকআপের বেজ ভালো বসবে।

এস এম পলাশ