কালিগঞ্জে দ্বিতীয় শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা, গ্রেফতার-১

0
147
নলতা  প্রতিনিধি:
দ্বিতীয় শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা চালানো হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার ঘুষুড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ এক শ্রমিক নেতাকে গ্রেফতার করেছে। কালিগঞ্জ উপজেলার ঘুষুড়ি গ্রামের এক ভাটা শ্রমিক জানান, স্বামী তাকে ছেড়ে চলে যাওয়ার পর মেয়েকে নিয়ে সরকারি খাস জায়গায় বসবাস করেন তিনি। সংসার চালানোর জন্য তিনি বাবার সঙ্গে পার্শ্ববর্তী একটি ইটভাটায় কাজ করে থাকেন। তার বাড়ির পাশেই রয়েছে ঘুষুড়ি ইঞ্জিনভ্যান শ্রমিক অফিস। ওই সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন একই গ্রামের মাজেদ গাজী ওরফে ধোনা গাজীর ছেলে তোরাব আলী গাজী। তিনি আরো জানান, ভাটায় থাকার কারণে বাড়িতে একা থাকা তার ২য় শ্রেণির পড়ুয়া মেয়েকে শ্রমিক অফিসে টেলিভিশন দেখানোর নাম করে ডেকে নিয়ে যায় তোরাব আলী। টিভি ছেড়ে দেওয়ার পর দরজা লাগিয়ে দিয়ে মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করলে ন্থানীয় লোকজন তোরাব আলীকে ধরে ফেলে। খবর পেয়ে তিনি রক্তাক্ত মেয়েকে নিয়ে কালিগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করেন। খবর পেয়ে কালিগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক ইস্রাফিল হোসেন রাতেই তোরাব আলীকে আটক করেন।
কালিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবীর দত্ত জানান, ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে স্কুল ছাত্রীর নানা বাদী হয়ে তোরাব আলীর নাম উলেখ করে শুক্রবার রাতেই থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১৯(৪) ধারায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। তোরাব আলীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা ও ২২ ধারায় জবানবন্দির জন্য শনিবার দুপুরে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ও আদালতে পাঠানো হয়েছে।