কলারোয়ায় নুরুল চেয়ারম্যানের মহৎ উদ্যোগে গাঁজাসেবীর জরিমানা

0
84
কলারোয়া প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় আর কখনো মাদক সেবন করবে না বলে অঙ্গীকার করে রেহায় পেলো এক গাঁজাসেবী। তবে তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে গাঁজা সেবন করার অপরাধে জরিমানা করা হয়েছে। থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব দেবনাথের সহায়তায় যে কোন মূল্যে নিজ ইউনিয়নকে মাদক মুক্ত ঘোষণা করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান মাস্টার নুরুল ইসলাম। ঘটনাটি শুক্রবার সকালে উপজেলার লাঙ্গলঝাড়া ইউনিয়ন পরিষদে ঘটেছে। মাদকসেবী লাঙ্গলঝাড়া মল্লিকপাড়া গ্রামের মৃত নজরুল মল্লিকের ছেলে রফিকুল মল্লিক (৩০)। ইউপি চেয়ারম্যান মাস্টার নুরুল ইসলাম জানান, স্ত্রী-সন্তানের সামনে গাঁজাসেবী রফিকুলকে একাধিকবার মাদক সেবন থেকে বিরত থাকার কথা বললেও সে আমলে নেইনি। এমনকি পায়ে ভ্যান চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে স্ত্রী-সন্তানকে ঠিকমতো ভরণ পোষন দিতে পারতো না সে। এরমধ্যে শুক্রবার সকালে বাড়িতে বসে গাঁজাসেবন করার সময় ইউপি চেয়ারম্যান জানতে পেরে গ্রাম পুলিশ দিয়ে গাঁজাসেবী রফিকুলকে গাঁজাসহ ইউপি ভবনে নিয়ে আনেন। খবর পেয়ে উপজেলা নিবার্হী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনিরা পারভীনের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের একটি টিম হাজির হয়ে গাঁজা সেবনের অপরাধে রফিকুলকে আটক করেন। আর কোন দিন মাদক সেবন করবেনা বলে আদালতের সামনে রফিকুল অঙ্গীকার করলে তাকে ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আদালত পরিচালনাকালে উপস্থিত ছিলেন থানার এসআই রফিক, ইউপি সদস্য কামরুজ্জামান, আওয়ামীলীগ নেতা কাদের মল্লিক, শামসু খা প্রমুখ। এদিকে, ইউপি চেয়ারম্যানের এমন কাজের জন্য সাধুবাদ জানিয়েছেন সর্বস্তরের সুধিজন ও যুব সমাজ। তারা বলেন যুব সমাজ ধ্বংসের মূল হাতিয়ার হলো মাদক। তাই শুধু ইউনিয়ন থেকে নয় গোটা উপজেলাব্যাপী অভিযান চালিয়ে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীদের ভ্রাম্যামাণ আদালতের মাধ্যমে দীর্ঘ মেয়াদী সাঁজা দিয়ে মাদকের কালো থাবা থেকে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে রক্ষা করতে হবে।