কলারোয়ার ভাদিয়ালী স্কুলে চুরি

0
76
জুলফিকার আলী,কলারোয়া:
কলারোয়ায় এক স্কুলের নাইট গার্ড হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করতে না পারায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই স্কুলের ৬টি রেজিস্টার খাতা ও একটি ঘণ্টা চুরি করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে । ঘটনাটি ঘটেছে,কলারোয়া উপজেলার সোনাবাড়ীয়া ইউনিয়নের উত্তর ভাদিয়ালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। এ ঘটনায় কলারোয়া থানায় একটি চুরির অভিযোগ দাখিল করেছে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক বাবলুর রহমান। বুধবার স্কুলে গিয়ে জানা যায়, ভাদিয়ালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাইটগার্ড ফাইিদ হাসান বিপ্লব গত ১০ ডিসেম্বর-২০১৭ কলারোয়ার ভাদিয়ালী সীমান্তে দিয়ে ভারতে পাচারের সময় প্রায় দেড় কেজি স্বর্ণ নিয়ে পালিয়ে যায়। সেই থেকে সে পলাতক রয়েছে। তাকে ধরার জন্য সীমান্তে পুলিশ ও বিজিবি অভিযান অব্যাহত রেখেছে।  এদিকে ভাদিয়ালী প্রাইমারী স্কুলের হাজিরা খাতায় তার স্বাক্ষর না থাকায় সে মঙ্গলবার রাতে স্কুলের ৩টি তালা ভেঙ্গে প্রবেশ করে ৯টি রেজিস্টার খাতা ও একটি ঘণ্টা চুরি করে নিয়ে যায়। স্কুলের সভাপতি  আব্দুল মান্নান গাজী জানান, স্বর্ণ চুরির অভিযোগে নাইটগার্ড পালিয়ে থাকায় স্কুলে চুরির ঘটনাটি ঘটেছে বলে তিনি ধারনা করেন। স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক আ: মান্নান জানান, তিনি স্কুলে এসে ঘটনাটি জানতে পরেন। ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করতে না পারায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই স্কুলের ৬টি রেজিস্টার খাতা ও একটি ঘণ্টা চুরি করেছে নাইটগার্ড ফাহিদ হাসান  বিপ্লব। এদিকে উপজেলা শিক্ষা অফিসার আকবর হোসেন জানান, স্কুলে চুরির বিষয়টি কলারোয়া থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে একই সাথে আইনগত ব্যবস্থান নেয়া হবে। অন্যদিকে ভাদিয়ালী স্কুলের প্রধান শিক্ষক বাবলুর রহমান জানান-তিনি ঘটনাটি জানার পরে উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে অবহিত করে কলারোয়া থানায় লিখিত ভাবে একটি অভিযোগ দিয়েছেন, তিনি শুনেছেন স্বর্ণ চুরির অভিযোগে স্কুলের নাইটগার্ড বিপ্লবকে পুলিশ খুজছে, সে ২১ ডিসেম্বর থেকে পলাতক রয়েছে। এদিকে এলাকাবাসীরা জানান-নাইটগার্ড হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করতে না পারায় সে ওই স্কুলের ৬টি রেজিস্টার খাতা ও একটি ঘণ্টা নিয়ে চুরির নাটক সাজিয়েছে।