এএফসির বিশেষ সম্মাননা নিয়ে সাতক্ষীরায় ফিরলেন তৈয়ব হাসান

0
69

নিজস্ব প্রতিনিধি : এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের সম্মাননা নিয়ে সাতক্ষীরায় ফিরলেন অবসরপ্রাপ্ত ফিফা রেফারী সাতক্ষীরার কৃতি সন্তান তৈয়ব হাসান। তার এ সম্মাননা বাংলাদেশর জন্য বড় একটা সুসংবাদ। বাংলাদেশের সদ্য সাবেক এই রেফারিকে বিশেষ সম্মাননা দিল এএফসি।
রোববার বিকালে তৈয়ব হাসান বাবু সাতক্ষীরায় ফিরলে সাতক্ষীরা জেলা রেফারিজ এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও মিষ্টিমুখ করান। এসময় উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরার বিশিষ্ট সমাজসেবক আলহাজ্ব ডাঃ মোঃ আবুল কালাম বাবলা, সাতক্ষীরা পৌরসভার কাউন্সিলর শেখ শফিক উদদৌলা সাগর, জেলা স্কাউটসের সম্পাদক এম. ঈদুজ্জামান ইদ্রিস, ইকবাল কবির খান বাপ্পি, জাহিদ হাসান, সাহাজান হোসেন সাজু, আবু ওয়াহিদ বাবলু, শাহীন, সাম্মু চৌধুরী, মনিরুজ্জামান, নাসির উদ্দিনসহ জেলা রেফারিজ এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ।
এদিকে সাতক্ষীরার এই অবসরপ্রাপ্ত রেফারী তৈয়ব হাসানকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন সাতক্ষীরা পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতি, সাতক্ষীরা কমার্স কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল হামিদ, সনাক সাতক্ষীরার সভাপতি ড. দিলারা বেগম, ফোরাম ৮৭, মাসিক সাহিত্যপাতাসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
উল্লেখ্য, ১৯ জানুয়ারি কুয়ালালামপুরে এক অনুষ্ঠানে এ সম্মাননা গ্রহণ করেন তৈয়ব হাসান বাবু। দীর্ঘদিন রেফারিংয়ে অবদান রাখার জন্য এই সম্মাননা দিয়ে থাকে এএফসি। বাংলাদেশ থেকে এই প্রথম এটি পাচ্ছেন তৈয়ব। যিনি আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া সব ধরনের রেফারিং থেকেই মাস কয়েক আগে অবসরে গেছেন। ১৯৯৯ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত ১৮ বছর ফিফা রেফারি ছিলেন, এলিট প্যানেলে থেকে এশিয়াজুড়ে গুরুত্বপূর্ণ অনেক ম্যাচে বাঁশি বাজিয়েছেন। এএফসির এলিট প্যানেলে রামকৃষ্ণের পর দ্বিতীয় বাংলাদেশি রেফারি তৈয়ব একসময় এশিয়ার সেরা ২৫ রেফারির তালিকায়ও ছিলেন। তবে দেশের বাইরে এ সম্মান তিনি পেলেন। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রেফারী তৈয়ব হাসান বলেন, ‘এই অর্জন আমার একার নয়, গোটা দেশের, গোটা রেফারি সমাজের।’

আব্দুর রহমান

LEAVE A REPLY