উপকূলের সবুজযোদ্ধা পাইকগাছার ঐশী

0
174

 পাইকগাছা প্রতিনিধিঃ   
উপকূলের সবুজ যোদ্ধা ঐশ্বর্য চক্রবর্তী ঐশী। পাইকগাছার বিভিন্ন স্কুলে বিগত কয়েক বছর সবুজ উপকূল নামক ব্যতিক্রম ধারার কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঐশী এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহন করে পরিবেশ সুরক্ষায় উদ্বুদ্ধ হয়েছে এবং সহপাঠীদের সচেতন করছে। সে স্কুলে প্রকাশিত দেয়াল পত্রিকা ‘বেলাভূমি’র সম্পাদনার দায়িত্ব পালন করেছে। সে তার বাড়ীর আঙ্গিনায় ফলদ ও ফুলের গাছ লাগানোর পাশাপাশি বাড়ীর ছাদের উপর টবে গাছ লাগিয়েছে। সবুজ উপকূল সুরক্ষায় স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থী ঐশী তার বাড়ীর ছাদে বাগান তৈরী করায়  পরিবেশবাধী ও শিক্ষার্থীদের মাঝে সাড়া পড়েছে। ঐশী পাইকগাছা সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ও পৌরসভার সরল গ্রামের বাসিন্দা। তার পিতা সুরঞ্জন চক্রবর্তী ব্যবসায়ী ও মাতা গৃহিনী। মাতা পিতার সহযোগিতায় ঐশী ফুল ও ফলের গাছ পরিচর্যা করছে। এ বিষয়ে ঐশী জানায়, প্রচন্ড তাপদাহ ও অনাবৃষ্টির কারণে ছাদের টবের গাছ গুলি বাঁচিয়ে রাখতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। ফুলের চারার টব গুলিতে টিউবওয়েলের জল দেওয়ায় অনেক গুলো গাছ মরে গেছে। এর কারণ হিসেবে জানা যায় এ এলাকার টিউবওয়েলের জলও লবণাক্ত। তাছাড়া আশেপাশের পুকুর গুলোতে জল না থাকায় অনেক দূর থেকে জল এসে বাকি চারা গুলো বাঁচিয়ে রাখার চেষ্টা করছে।
উপকূলীয় অঞ্চল একটি সমৃদ্ধশালী এলাকা। সুন্দরবন, সাগর, নদীসহ উপকূলীয় অঞ্চল দেশের আর্থসামাজিক কর্মকাণ্ডে ভূমিকা রাখছে। এ অঞ্চল থেকে আহরিত সম্পদ দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ করছে। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে উপকূলীয় অঞ্চলে ঝুঁকি বাড়ছে। উপকূলের প্রধান ঝুঁকি সমূহ হচ্ছে ঘূর্ণিঝড়, জলোচ্ছ্বাস, লবণাক্ততা, নদী ভাঙ্গন ও সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি। এই ঝুঁকি আর সম্ভাবনাময় উপকূল অঞ্চলকে বাঁচিয়ে রাখাটা জরুরী। একমাত্র পারে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে সবুজ উপকূল গড়তে। তাই সবুজ উপকূল গড়তে লাগাতে হবে প্রচুর বৃক্ষ। মানুষের প্রয়োজনে পরিবেশ বাঁচিয়ে রাখাতে হবে।  ঐশী তার পরিবেশ সচেতনা বোধ থেকে গাছ লাগানো এ উদ্যোগ অত্যন্ত প্রশংসার দাবী রাখে।

প্রকাশ ঘোষ বিধান

LEAVE A REPLY