আশাশুনিতে মৎস্য ঘেরে হামলা মাছ লুট ও হয়রানি

0
81

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে মৎস্য ঘেরে হামলা চালিয়ে মাছ লুটপাট ও মিথ্যা হয়রানির প্রতিবাদে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে এক জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন দক্ষিণ চাপড়া গ্রামের আনার আলী সরদারের ছেলে মো: আবু জাহিদ সোহাগ। তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন,  ১৬ মে মঙ্গলবার আশাশুনি প্রেসক্লাবে একটি সংবাদ সম্মেলন করেছে চাপড়া গ্রামের মৃত আজিমুদ্দিন সরদারের ছেলে মহিউদ্দীন ফকির ওরফে দালাল ফকির। সংবাদ সম্মেলনে দালাল ফকিরের উত্থাপিত বিষয় গুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা। তিনি বাউশুলী মৌজায় ১৩৫ ও ১৩৭ খতিয়ানে ৭৪ দাগে ওয়ারেশ সূত্রে ও বন্টন নামা সূত্রে মোট ২.৬৬ একর জমি প্রাপ্ত হয়ে দীর্ঘদিন ভোগ দখল করছেন। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা। সংবাদের উল্লেখিত আমেনা খাতুন ওই সম্পত্তির কখনো ওয়ারেশ ছিল না, বা বন্টনামা সূত্রে জমির ভাগও পাবে না। আমেনা খাতুনের দাবিকৃত বন্টন নামা উচ্চ আদালতের মাধ্যমে বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে। ওই সম্পত্তির বর্তমান মালিক তাহমিন আরা বেগম। তাহমিনার পিতা মৃত্যুর আগে তাকে দানপত্র করে যান। যে কারণে তাহমিন আরা বেগমের ফুফু আমেনা খাতুনের  সম্পত্তি দাবি করা অযৌক্তিক। আমি তাহমিন আরার কাছ থেকে  সম্পত্তি লীজ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে মৎস্য ঘেরে মাছ চাষ করে আসছি। কিন্তু অত্র এলাকার কুখ্যাত দালাল, বাটপার মহিউদ্দীন ফকিরসহ তার লোকজন আমাকে ক্ষতিগ্রস্থ করার লক্ষ্যে সে তাহমিনা আরার ফুফুকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে এ ধরনের অপপ্রচার চালিয়ে আসছে। দালাল ফকির উল্লেখ করেছে যে, আমি ও আমার ভাই চাচারা মিলে ১১ মে তার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট করেছি। আমি নাকি তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী, অস্ত্রবাজ, যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, সাজানো নাটক মাত্র। আমার নামে এ ধরনের কোন অভিযোগ নেই। এ পর্যন্ত একটি জিডিও হয়নি। ওই রাতে উক্ত স্থানে ফকিরের ছেলে আসলামসহ তার লোকজন আমার ঘেরের বাসায় গিয়ে আমাদের উপর হামলা করে এবং ঘেরের মাছ লুটপাট করে। এ সময় আমার ভাই সুজনকে মারপিট করে গুরুতর আহত করে। আমরা যাতে তাদের বিরুদ্ধে কোন আইনী সহায়তা না পাই সে কারণে বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে ফকির গংরা আমার ও আমার ভাইদের বিরুদ্ধে মিথ্যা হয়রানি মূলক সংবাদ প্রকাশ করেছে। দালাল ফকির এলাকায় মানুষের কাছে রাজাকার হিসাবে পরিচিত। এ ছাড়া সে জামায়াতের রাজনীতির সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত। তিনি কুচক্রী মহিউদ্দীন ফকির ওরফে দালাল ফকির কর্তৃক মিথ্যা হয়রানি মূলক সংবাদের তীব্র নিন্দা জানান। একই সাথে ফকিরের ষড়যন্ত্রের হাত থেকে রক্ষা পেতে এবং তার বাহিনীর দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির জন্য  সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।