‘আমি দরিদ্র ছিলাম, এর মধ্যে রোমান্টিকতা নেই’

0
240

অনলাইন ডেস্ক : বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের অভিনয় শুধু নয়, তাঁর কথা, চালচলন ও জীবনদর্শনও অনেকে অনুসরণ করেন। কিং খানও বলতে ভালোবাসেন নিজের জীবন ও ক্যারিয়ার নিয়ে। সম্প্রতি জিকিউ ম্যাগাজিনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নিজের নানা দৃষ্টিভঙ্গি মেলে ধরেন বলিউডের এই জনপ্রিয় অভিনেতা। জিকিউ ম্যাগাজিনের জানুয়ারি সংখ্যার বরাত দিয়ে লাইফডট কম জানিয়েছে কিছু বিষয়ের ওপর শাহরুখের নিজস্ব ভাবনার কথা।

নিজের বাবা-মাকে হারানো নিয়ে শাহরুখ বলেন, ‘এখন আমার ৫১ বছর বয়স। বাবাকে হারাই ১৪ বা ১৫ বছর বয়সে। মাকে হারাই ২৫ বছর বয়সে। এই শূন্যতা অপূরণীয়। খুব কম বয়সে বাবা-মাকে হারালে বাচ্চারা খুব দ্রুত বড় হয়ে যায়। খেলনা নিয়ে খেলার সময় আর থাকে না। বাস্তব পৃথিবীর সঙ্গে লড়তে হয়। প্রার্থনা করি, আমার বাচ্চারা যেন খেলনা দিয়ে খেলতে পারে। লোকে বাইরে থেকে হয় তো দেখে, আমি কেবল একজন ভালো বাবা। তবে মানুষ দেখে না- আমি সেই বাবা, যার খেলনা ছিল না।’

শাহরুখের দরিদ্র অবস্থা থেকে তারকা হওয়ার ইতিহাস সবাই জানেন। আর এই বিষয়টা শাহরুখ কখনোই ভোলেন না, বরং সুযোগ পেলেই স্মরণ করেন আর বলেন, ‘ধনী না হওয়া পর্যন্ত দার্শনিক হওয়ার প্রয়োজন নেই। আমি দরিদ্র ছিলাম, এর মধ্যে রোমান্টিকতা নেই। যখন বন্ধুবান্ধবরা বলে, সৃষ্টিশীল কোনো ঔপন্যাসিক হতে চান, আমি বলি, আগে কপিরাইট করে কিছু টাকা উপার্জন করো, লড়াই করা শিল্পী না হয়ে সুখী হও।’

অভিনয়ের পাশাপাশি আর কী করছেন, সেটাও দর্শকদের জানান শাহরুখ। বলেন, ‘আমাদের একটি নিজস্ব রেস্তোরাঁ আছে। এখানে আমাকেও কিছু কাজ করতে হয়। আমি ইতালীয় খাবার রান্না করা শিখছি। পাস্তা, রিসোত্তো ও তিরামিসু রান্না করতে পারি। তবে আমি লোকজনকে সার্ভ করতেই বেশি পছন্দ করি। আর তারা ঠিকঠাকমতো খাচ্ছে কি না সেটি দেখতে পছন্দ করি। আমি ভালোভাবে গিটার বাজানো শিখতে চাই। কয়েক বছর আগে স্পেন থেকে দুটো দামি গিটার কিনেছি। একটি আমার জন্য, আরেকটি আমার ছেলে আরিয়ানের জন্য। তাকে বলেছি, আমরা একসঙ্গে গিটার বাজানো শিখব। আশা করছি গিটার বাজানো শিখলে একটি ব্যান্ড করব।’

উল্লেখ্য, ২৫ জানুয়ারি মুক্তি পেতে যাচ্ছে শাহরুখ খান অভিনীত চলচ্চিত্র ‘রইস’। এটিই হবে বলিউড কিংয়ের এ বছরের প্রথম ছবি।