আমাদের সৌভাগ্য শেখ হাসিনা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী

0
130
কামরুল ইসলামঃ
বাংলাদেশের কোনো নোবেল বিজয়ীর প্রয়োজন নেই বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘প্রয়োজন রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার মতো নোবেল ওয়ার্কার।’
আজ রোববার দুপুরে যশোর টাউন হল মাঠে যুবলীগ আয়োজিত খুলনা বিভাগীয় বিশেষ প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন যুবলীগ চেয়ারম্যান। আগামি ৩১ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যশোর সফরকে সফল করতে এই বিশেষ প্রতিনিধি সভার আয়োজন করা হয়।
ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, ‘আমরা শান্তিতে নোবেল জয়ী অং সাং সুচিকে দেখেছি মানুষ হত্যার মহানায়ক হিসেবে আবির্ভূত হতে। নিজের দেশের ড. ইউসুনকে দেখেছি; দেশের কোন সমস্যায় তাঁকে পাওয়া যায় না। দেশে বন্যার্তদের জন্য তিনি এক টাকা না দিলেও হিলারি ক্লিনটনের নির্বাচনে কোটি কোটি ডলার দিয়ে আসেন। আবার শান্তিতে নোবেল পেয়েছেন আমেরিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। কিন্তু তার কোন শান্তির দর্শন নেই। যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, একমাত্র রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা, যার শান্তির দর্শন আছে; যা জাতিসংঘে ১৯৩ টি রাষ্ট্র ও সদস্য কর্তৃক স্বীকৃত।’
‘অক্সফোর্ড ইউনিভারসিটি থেকে শুরু করে বিশ্বের ১৫/২০ টা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনাকে নিয়ে গবেষণা করছে কারন রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার জনগণের ক্ষমতায়ন এর জন্য বাংলাদেশ আজ বিশ্ব সমাজে অন্যন্য উচ্চতায় উঠে গেছে। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহা সড়কে বর্তমান বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল।
জাতি হিসেবে আমাদের সৌভাগ্য রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার মত নেত্রী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। আজ সারাবিশ্বে যে নেতার নাম সবচেয়ে বেশি আলোচিত হচ্ছে তিনি হলেন রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা। কারন রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা বিশ্বের তৃতীয় সৎ সরকার প্রধান, বিশ্বের ৪র্থ পরিশ্রমী সরকার প্রধান, বিশ্বের ২য় স্বপ্নবাজ সরকার প্রধান।
রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা তাঁর সততা, স্বপ্ন, দক্ষতা আর পরিশ্রম দিয়ে বাংলাদেশ কে উন্নয়নের চরম শিখরে নিয়ে যাওয়ার প্রচেষ্টার জন্য সারা বিশ্বে সমাদৃত হচ্ছেন।’ যোগ করেন যুবলীগের চেয়ারম্যান।
এই নেতা আরো বলেন, ‘অন্য দিকে খালেদা জিয়া ও তাঁর সন্তান তারেক জিয়া সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষকতা ও দুর্নীতির জন্য সারা বিশ্বে নিন্দিত হচ্ছেন।’
জেলা যুবলীগের সভাপতি মোস্তফা ফরিদ আহমেদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রতিনিধি সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য এসএম কামাল হোসেন, যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, যশোর-২ আসনের সংসদ সদস্য মনিরুল ইসলাম, যশোর-৫ আসনের সংসদ সদস্য স্বপন ভট্টাচার্য, যুবলীগ নেতা মাহবুবুর রহমান হিরন, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক যশোর পৌরসভার মেয়র জহিরুল ইসলাম রেন্টু চাকলাদার প্রমুখ।