আফগানিস্তানের সেই মোনালিসা গ্রেফতার

3
318

অনলাইন ডেস্ক :

আফগানিস্তানের মোনালিসাখ্যাত শরবত বিবিকে গ্রেফতার করেছে পাকিস্তানের পেশোয়ারের পুলিশ। বুধবার তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের গণমাধ্যমগুলো। শরবত বিবির বিরুদ্ধে জাতীয় পরিচয়পত্র জালিয়াতির অভিযোগ আনা হয়েছে।

অভিযোগে বলা হয়েছে, জালিয়াতির মাধ্যমে পাকিস্তানের কম্পিউটারাইজড জাতীয় পরিচয় পত্র (সিএনআইসি) নিয়েছেন শরবত বিবি। তার কাছে আফগানিস্তানেরও জাতীয় পরিচয় পত্র রয়েছে। বুধবার পেশোয়ারে তার নিজের বাসা থেকে বিবিকে গ্রেফতার করে ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সির (এফআইএ) সদস্যরা। তার কাছ থেকে দুটি দেশেরই জাতীয় পরিচয় পত্র পাওয়া গেছে।

এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পাকিস্তানের ন্যাশনাল ডাটাবেজ রেজিস্ট্রেশন অথোরিটি (নাদরার) ৩ কর্মকর্তাকে চিহ্নিত করেছে এফআইএ। অচিরেই হয়তো ওই কর্মকর্তাদের গ্রেফতার করা হবে।

শরবত বিবির বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার ৭-১৪ বছর জেল হতে পারে। পাশাপাশি, ২,৩৫,০০০-৩,৯২,০০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে।

শরবত বিবির বর্তমান বয়স ৪৪ বছর। অনেকের কাছেই তিনি শরবত গুলা নামে পরিচিত। সাধারণ এই আফগান নারী বিশ্বব্যাপী পরিচিতি পেয়েছিলেন ১৯৮৪ সালে। তখন তিনি ছিলেন ১২ বছরের কিশোরী। সে সময় সোভিয়েত ইউনিয়নের (বর্তমান রাশিয়া) দখলদারিত্বে থাকা যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানের নাসির বাগ রিফুজি ক্যাম্পে শরবত গুলার একটি ছবি তুলেছিলেন ন্যাশনাল জিওেগ্রাফিক ম্যাগাজিনের চিত্রগ্রাহক স্টিভ ম্যাককারি। পরে সেই ছবিটি ওই ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে ছাপা হয়েছিল। শরবত গুলার সবুজ চোখে আতঙ্কভরা ‍দৃষ্টি ও মুখের কঠোর অভিব্যক্তিতে যেন সেসময়ের পুরো আফগান জাতির চিত্রই বিশ্ববাসীর কাছে স্পষ্ট হয়ে উঠেছিল।

ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক তাদের সেই ছবির শিরোনাম দিয়েছিল ‘আফগান গার্ল’ বা আফগান কিশোরী। পরে তাকে অনেকেই আফগানিস্তানের মোনালিসা বলেও আখ্যা দেয়। কারণ ইতালির বিখ্যাত চিত্রশিল্পী লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির বিশ্বখ্যাত চিত্রকর্ম মোনালিসার মতোই রহস্যময় দৃষ্টিতে বিশ্বকে যেন দেখছিল শরবত গুলা।

শরবত গুলার গ্রেফতারের সংবাদ তাই গোটা বিশ্বেই আলোচনার বিষয়বস্তুতে পরিণত হয়েছে। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এই সংবাদ বিশেষ স্থান দখল করে নিয়েছে।