আদালতের আদেশ অমান্য করে পঙ্গু মানুষের জমি দখল

0
78

পাটকেলঘাটা প্রতিনিধি :
আদালতের আদেশ অমান্য করে পুলিশের সহযোগিতায় প্রায় ৪ লক্ষাধিক টাকার নার্সারী চারা কেটে ক্ষতিসাধনসহ উচ্ছেদের উদ্দেশ্যে জবর দখলের মাধ্যমে ঘরবাড়ি নির্মাণ করার প্রতিবাদে পাটকেলঘাটা প্রেসক্লাবে মঙ্গলবার বেলা ১১টায় সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ভুক্তভোগী পাটকেলঘাটা থানার দাদপুর গ্রামের মৃত. শেখ অহেদ আলীর পুত্র শেখ আঃ হান্নান তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমি এক পা হারানো একজন পঙ্গু ব্যক্তি। দীর্ঘ বছর যাবত ক্রাচের মাধ্যমে কোনো রকম এক পায়ে চলাফেরা করছি। পরিবার পরিজন নিয়ে অনাহারে অর্ধাহারে জীবন জীবিকা নির্বাহ অত্যন্ত কষ্টের বিধায় ১০/১২ বছর আমার ভোগদখলীকার দাদপুর মৌজাধীন এস.এ ৮৮৮ খতিয়ানের ৩১২ দাগের ১ একর ২০ শতকের মধ্যে আমার প্রাপ্ত ৩০ শতক সম্পত্তিতে বিভিন্ন প্রজাতির ফলজ ও বনজ গাছের চারা ও বীজ রোপন করে তা বিক্রির মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করে আসছি। এমতাবস্থায় আমার ভোগদখলীকার নার্সারি ক্ষেত আমার প্রতিপক্ষ মোজাম শেখের পুত্র শাহিন ও শহীদকে ভূল বুঝিয়ে প্রতিবেশী বিডিআর বিদ্রোহ মামলার সাজাপ্রাপ্ত শেখ আতিয়ার রহমানের নেতৃত্বে ১০/১৫জন লাঠিয়াল বাহিনী দেশীয় অস্ত্র শস্ত্রে গত ১৮ সেপ্টেম্বর জবর দখলের পায়তারা করে। পঙ্গু ও অসহায় বিধায় নিরুপায় হয়ে আত্মীয় স্বজনদের সঙ্গে পরামর্শ করে পরদিন ১৯ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে কাঃবিঃ ১৪৫ ধারা মতে পিটিশন মামলা দাখিল করি। যার নং পি-১০২৬/২০১৬। আদালতের বিজ্ঞ বিচারক সৈয়দ ফারুক হোসেন শুনানী শেষে স্থিতিবস্থাদেশ দিয়ে পাটকেলঘাটা থানা পুলিশকে শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।
কিন্তু পাটকেলঘাটা থানার এস.আই মনোজিত দেবনাথ গত ২০ সেপ্টেম্বর নোটিশ জারি করার নামে আদালতের আদেশকে তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করে দ্বিতীয় পক্ষদের সঙ্গে গোপন আতাতের মাধ্যমে ঘরবাড়ি নির্মাণ করার সুযোগ করে দেন। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে দ্বিতীয় পক্ষরা ২ সেপ্টেম্বর হতে ২৫ সেপ্টেম্বর নালিশি সম্পত্তিতে আমার ৬শতাং জমিতে রোপনকৃত বিভিন্ন প্রজাতির ৪ লক্ষাধিক টাকা মুল্যমানের অন্তত ৫ হাজার চারা কেটে সম্পুর্ন নষ্ট করে এবং উক্ত সম্পত্তিতে জবর দখলের মাধ্যমে ঘরবাড়ি নির্মাণ করে। এমতাবস্থায় পুনরায় আদালতের শরনাপন্ন হয়ে গত ২৫ সেপ্টেম্বর পুনরায় আবেদন করলে বিজ্ঞ বিচারক নালিশি সম্পত্তিতে দ্বিতীয় পক্ষদের প্রবেশে বারিত আদেশ দেন।  পাটকেলঘাটা থানার এস.আই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মনোজিত দেবনাথ আদালতের আদেশকে ভ্রুক্ষেপ না করে দ্বিতীয় পক্ষদের ঘরবাড়ি নির্মাণের সহযোগিতা করেন।
তিনি লিখিত বক্তব্যে আরো বলেন আমার দাখিলকৃত পিটিশন মামলায় আদালতের আদেশ পাওয়া স্বত্বেও পুলিশ কর্মকর্তার উৎকোচ বানিজ্যে আমি বিপুল পরিমাণ আর্থিক ও সামাজিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি। বর্তমানে নালিশি সম্পত্তিতে প্রতিপক্ষরা জবর দখলের মাধ্যমে ঘরবাড়ি নির্মাণ করেছে। দাঙ্গাবাজ দ্বিতীয় পক্ষরা গত ১০/১২ দিন ধরে আমার এবং পরিবারের লোকজনদের জিম্মি করে রেখেছে। আমি পঙ্গু বিধায় অসহায়ত্বের সুযোগে প্রতিপক্ষরা আমাকে যেকোনো সময় জীবননাশ এমনকি পরিবারের লোকজনদের নানাভাবে ক্ষয়ক্ষতি করিতে পারে এমন আশংকায় দিনাতিপাত করছি।

এস.এম মফিদুল ইসলাম/একে/আই।

LEAVE A REPLY