আগরদাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ক্লাশরুমের অভাব প্রকট

0
95

আশাশুনি প্রতিনিধি:

আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের ৩২নং আগরদাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্লাশ রুম ও বেঞ্চের অভাবে চরম বিপত্তির মধ্যে স্কুল পরিচালনা করা হচ্ছে। ফলে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা চরম মনকষ্টে আছেন।  উপজেলার মধ্যে অন্যতম শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচিত এই বিদ্যালয়টি ১৯৬৫ সালে প্রতিষ্ঠিত। সরকারিকরণ করা হয় ১৯৭৩ সালে। শুরু থেকে এলাকার মানুষের অকৃত্রিম সহযোগিতা ও ভালবাসায় পুষ্ট হয়ে বিদ্যালয়টি চলে আসছে। লেখাপড়ার মানও বরাবর ভাল। বর্তমানে বিদ্যালয়ে ৩৪২ জন ছাত্রছাত্রী রয়েছে। শিক্ষক রয়েছেন ৭ জন। কিন্ত শ্রেণি কক্ষ আছে মাত্র ৩টি। বাধ্য হয়ে গ্রামের মানুষের সহযোগিতায় একটি বাঁশের খুটি, চটার বেড়া আর সন/গোলপাতার ছাউনি দিয়ে একটি ঘর নির্মাণ করে কোন রকমে ক্লাশ পরিচালনা করা হচ্ছে। এই কক্ষে ঝড়-বৃষ্টি, শীত, রৌদ্রে ক্লাশ নেওয়া কষ্টসাধ্য হয়ে থাকে। ক্লাশ রুমের অভাব ও প্রয়োজনীয় বেঞ্চ-টেবিল না থাকায় সমস্যা জর্জরিত হয়ে অতি কষ্টে ক্লাশ পরিচালনা করা হচ্ছে। ৩য় শ্রেণিতে ৬০ জন, ৪র্থ শ্রেণিতে ৭৮ জন ও ৫ম শ্রেণিতে ৫০ জন ছাত্রছাত্রী থাকলেও ক্লাশ রুমের অভাবে শাখা শ্রেণি খোলা সম্ভব হচ্ছেনা। ফলে অতিরিক্ত ছাত্রছাত্রী নিয়ে একজন শিক্ষককে ক্লাশ নিতে হচ্ছে। প্রধান শিক্ষক এস এম আলাউদ্দিন জানান, এরপর তাদের স্কুলের সার্বিক রেজাল্ট খারাপ নয়। বরং কয়েকবার উপজেলা শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিবেচিত হয়েছে। ২০১৩ সালে উপজেলায় সর্বোচ্চ এ+ (১৪ জন) ও ২০১৬ সালে সর্বোচ্চ এ+ (১৫ জন) পাওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেছে। এছাড়া বিদ্যালয়টি ২০০২ সাল থেকে অদ্যাবধি প্রতি বছর বৃত্তিপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানের মর্যাদা পেয়েছে। প্রতিষ্ঠানের পড়ালেখার মান আরও ভাল করা এবং সার্বিক পরিবেশ উন্নয়নের জন্য ক্লাশ রুম তথা নতুন ভবন নির্মাণ, বেঞ্চ নির্মানসহ প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করার জন্য এলাকাবাসী উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

জি এম মুজিবুর রহমান