অর্ধডজন মামলা নিয়ে বিএনপি নেতা গেলেন আ. লীগে ২১ জানুয়ারি ২০১৭, ২২:১৭

0
282

অনলাইন রির্পোট :

প্রায় ৩০০ নেতাকর্মী নিয়ে সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলা বিএনপির সদস্য-সচিব ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছেন। তাঁর বিরুদ্ধে হত্যা, সিরাজগঞ্জে ট্রেনে অগ্নিসংযোগের মামলাসহ অর্ধডজন মামলা রয়েছে। আজ শনিবার সন্ধ্যায় বেলকুচির আলহাজ সিদ্দিক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল লতিফ বিশ্বাসের হাতে ফুলের নৌকা দিয়ে আতাউর রহমান আওয়ামী লীগে যোগ দেন। এ সময় মঞ্চে জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না অন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়া অন্য নেতাদের রয়েছেন বেলকুচি উপজেলা শ্রমিক দলের আহ্বায়ক নুরুল ইসলাম নুরু, উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আল মাহমুদ, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা, হাসানুল হক রিপন, স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুকুল হোসেন মাসুদ রানা বাচ্চুসহ উপজেলা বিএনপি, রাজাপুর ইউনিয়ন বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।এর আগে আলহাজ সিদ্দিক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নবনির্বাচিত জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল লতিফ বিশ্বাসকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না।

বেলকুচি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম ইউসুফী জি খানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিরাজগঞ্জ-পাবনা সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য সেলিনা বেগম স্বপ্না, আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য অ্যাডভোকেট কে এম হোসেন আলী হাসান, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মোস্তফা কামাল খান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন, বেলকুচি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী আকন্দ, বেলকুচি পৌরসভার মেয়র আশানূর বিশ্বাস, শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়র হালিমুল হক মিরু প্রমুখ। আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে আতাউর রহমান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন দেখে তাঁর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আমি নেতাকর্মী নিয়ে আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছি।’

যোগাযোগ করা হলে বেলকুচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিসুর রহমান জানান, সিরাজগঞ্জের সয়দাবাদে ট্রেনে অগ্নিসংযোগ, হত্যাসহ বিএনপি নেতা আতাউর রহমানের বিরুদ্ধে অর্ধডজন মামলা রয়েছে।

এস এম পলাশ